Skip to main content

জোহানেসবার্গেও প্রোটিয়া তোপে লণ্ডভণ্ড পাকিস্তান

Article Highlights

জোহানেসবার্গে ২৬২ রানে গুটিয়ে গিয়েছিল স্বাগতিক দক্ষিণ আফ্রিকা। জবাবে প্রোটিয়া বোলিং তোপে নিজেদের প্রথম ইনিংসে ১৮৫ রানেই শেষ হয়েছে পাকিস্তানের ইনিংস। সবকটি উইকেটই নিয়েছেন পেসাররা।

দক্ষিন আফ্রিকা সফরটা ভুলে যেতে চাইবে পাকিস্তান। অন্যদিকে পেসার অলিভেয়ার চাইবেন বাঁধাই করে রাখতে। কেননা ঘরের মাঠে পাকিস্তান সিরিজে তিনি দু’হাত ভরে উইকেট পেয়েছেন। চলতি জোহাসেনবার্গ টেস্টেও প্রোটিয়া পেস তোপে পড়েছে সফরকারী পাকিস্তান। প্রথম ইনিংসে দক্ষিণ আফ্রিকা ২৬২ রানে গুটিয়ে যাওয়া পর ব্যাটিংয়ে নেমে রীতিমত বিধ্বস্ত হয়েছে সরফরাজ আহমেদরা। ৬ উইকেটে ১৬৯ থেকে ১৬ রান যোগ করতেই সবকটি উইকেট হারিয়েছে। ফলে প্রথম ইনিংসে ৭৯ রানের লিড পেয়েছে স্বাগতিকরা।

নিজেদের প্রথম ইনিংসে ২৬২ রানে গুটিয়ে যাওয়ার পর পাকিস্তানকে ধসিয়ে দেওয়ার আগে একটু বেগ পোহাতে হয়েছিল প্রোটিয়াদের। কেননা ৯১ রানে পাঁচ উইকেট পতনের পর সরফরাজ ও বাবর আজম জুটি ভালোই জবাব দিচ্ছিল। ৭৮ রানের জুটি গড়ে রান শোধ দেওয়ার চেষ্টাই করছিলেন এ দুজন। কিন্তু অলিভেয়ারের বোলিং তোপে তাসের ঘরের মতো হুড়মুড় করে ভেঙ্গে পড়ে পাক বাহিনীর ব্যাটিং লাইন। বাবরের ফিফটি ও সরফরাজ ৪৯ এবং ইমাম উল হক ৩৪ রান করেন। ফলে সব মিলিয়ে ১৮৫ রানেই শেষ হয়েছে সফরকারীদের ইনিংস।

স্বাগতিকদের হয়ে সবকটি উইকেটই নিয়েছেন পেসাররা। ডুয়াইন অলিভেয়ার পাঁচটি, ভারনন ফিল্যান্ডার ৩টি এবং কাগিসো রাবাদা ২টি উইকেট নেন। এর আগে দক্ষিণ আফ্রিকার ইনিংসে নয়টি উইকেট নিয়েছিলেন পাকিস্তানি পেসাররা। দক্ষিণ আফ্রিকার প্রথম ইনিংসে ২৬২ রানের মধ্যে এইডেন মার্করাম সর্বোচ্চ ৯০ রান করেছিলেন। ডি ব্রুইন ৪৯ এবং অভিষিক্ত যুবায়ের হামজা ও আমলা দুজনই ৪১ করে রান করেছিলেন।

এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংসে খেলতে নেমেছে স্বাগতিক দক্ষিণ আফ্রিকা। ইতিমধ্যে ৫ রান করে প্যাভিলিয়নে ফিরে গেছেন এই টেস্টে অধিনায়কত্ব পাওয়া ডিন এলগার। সর্বশেষ ১ উইকেটে ২৫ রান তুলেছে স্বাগতিকরা। মোট লিড দাঁড়িয়েছে ১০২ রানের। এখনো বাকী আছে তিনদিন।