Skip to main content

গুলশানের সেলিব্রিটি গ্যালারিতে ফাইবার গ্লাসে নির্মিত হয়েছে বিখ্যাতদের ভাস্কর্য

শিল্পী, সাহিত্যিক, রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব, অভিনেতা সবাই একই ছাদের নিচে। গুলশানের সেলিব্রিটি গ্যালারিতে ফাইবার গ্লাসে নির্মিত হয়েছে বিখ্যাতদের ভাস্কর্য। প্রতিটি দশনার্থীকে এগুলো আলোড়িত করবে বলছেন গ্যালারির প্রতিষ্ঠাতা ভাস্কর মৃণাল। ইনডিপেনডেন্ট টেলিভিশন।

গুলশানের সেলিব্রিটি গ্যালারিতে ঢুকলেই দেখা যাবে করিগুরু রবীন্দ্রনাথ ব্যস্ত কবিতা রচনায়। তার সামনেই কারা বন্দি হয়ে আছে কবি কাজী নজরুল। তার বিপরীতেই  ক্ষুদিরামের ফাঁসির মঞ্চ যেন বাস্তব হয়ে উঠে।

আস্থার হাত উঠিয়ে দাঁড়িয়ে আছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।  ফাইবার গ্লাসে জীবন্ত হয়ে উঠেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ড্রোনাল ট্রাম্প, বিপ্লবি চে গুয়েভার।

সেলিব্রিটি গ্যালারিতে প্রতিষ্ঠাতা ভাস্কর মৃণাল হক। ডিসেম্বরে চালু হওয়া এই গ্যালারিতে স্থান পেছেয়ে ৩২ জন বিখ্যাত ব্যক্তির ফাইবার গ্লাসের ভাস্কর্য।

ভাস্কর মৃণাল হক বলেন, ভাস্কর সম্পর্কে মানুষের যে ধারণা, এটাকে মুর্তি বলে। আসলে এই যে একটি শিল্পকর্ম তা বুঝানো জন্য এবং ক্ষুদ্র সমর্থ দিয়ে চেষ্টা করেছি একটি ওয়াচ মিউজিয়াম করতে। যাতে করে দেশের মানুষ ওয়াক্স মিউজিয়ামের সাধটা ফিল করতে পারে। 

বঙ্গবন্দু, শেরে বাংলা এবং সুর্যসেনসহ  সিগগিরই আরো ৪৪ জন বিখ্যাত মানুষের ভাস্কর্য যুক্ত হবে এই গ্যালারিতে।

গ্যালারিটি স্থাপিত হয়েছে গুলশান-১ এর দুই নম্বর সড়কের ৫/এ নং বাড়িতে। প্রায় ১২ কাঠার ওপর নির্মিত দ্বিতল ভবনের নিচতলায় রয়েছে এ গ্যালারি।

সপ্তাহের সাত দিনই খোলা থাকবে সেলিব্রেটি গ্যালারি। প্রতিদিন বেলা ১২টা থেকে রাত আটটা পর্যন্ত দর্শনার্থীরা সময় কাটাতে পারবেন এই প্রদর্শনালয়ে। সর্বসাধারণের প্রবেশে কোনো টিকেট সংগ্রহ করতে হবে কি-না এ ব্যাপারে এখনও কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। তবে প্রদর্শনী ছাড়া চার লাখ টাকায় ভাড়া নেওয়া এই গ্যালারির খরচ চালানো অসাধ্য। 
 

অন্যান্য সংবাদ