Skip to main content

এশিয়ান কাপ ফুটবলের শেষ ষোলোতে চীন ও দ.কোরিয়া

এশিয়ান কাপের শেষ ষোলতে জায়গা করে নিয়েছে দক্ষিণ কোরিয়া ও চীন। শুক্রবার অনুষ্ঠিত গ্রুপ পর্বের ম্যাচে দক্ষিণ কোরিয়া ১-০ গোলে কিরগিজস্তানকে হারিয়ে নক আউটপর্ব নিশ্চিত করে। একই রাতে ফিলিপাইনকে ৩-০ গোলে হারিয়ে শেষ ষোলতে জায়গা করে নেয় চীন। এদিকে ফিলিস্তিনকে ৩-০ গোলে হারিয়ে ঘুরে দাঁড়িয়েছে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়া।

কিম মিন-জেইসের গোলে বিরতীর আগেই লীড নিয়ে দলীয় জয়ের পথটি মসৃণ করে নেয় ২০১৫ আসরের রানার্সআপ দক্ষিণ কোরিয়া। চীনের সহজ জয়ে অনুপ্রেরনা জুগিয়েছেন উ লেই। ফিলিপাইনের বিপক্ষে একাই জোড়া গোল করেছেন তিনি। এর ফলে ‘সি’ গ্রুপ থেকে সমান সংখ্যক ছয় পয়েন্ট করে নিয়ে টেবিলের শীর্ষে অবস্থান করছে চীন ও দক্ষিণ কোরিয়া। আগামী বুধবার শীর্ষস্থান নির্ধারণী ম্যাচে পরস্পরের মোকাবেলা করবে দল দুটি। তবে এর আগেই জর্ডানের সঙ্গে শেষ ষোলতে জায়গা নিশ্চিত করল তারা।

জয় পেলেও সেভেন-গোরান এরিকসনের প্রশিক্ষনাধীন ফিলিপাইনের বিপক্ষে জয় পেতে রীতিমত ঘাম ঝড়াতে হয়েছে দক্ষিণ কোরিয়াকে। শেষ পর্যন্ত একটি মাত্র গোলে জয়লাভ করে তারা। টটেনহ্যাম হটস্পার্স তারকা সং-হিউং-মিনকে ছাড়া শেষ পর্যন্ত এই জয় পাওয়ায় অবশ্য স্বস্তিতে রয়েছে দক্ষিণ কোরিয়া।

প্রিমিয়ার লীগ ক্লাবের সঙ্গে চুক্তির অংশ হিসেবে প্রথম দুই ম্যাচে দলভুক্ত হননি সং। খেলা শেষে দ.কোরীয় কোচ পাওলো বনটো বলেন, ‘আমরা খুব ভাল পারফর্মেন্স করিনি। তবে আমরাই ছিলাম জয়ের দাবীদার। দ্বিতীয় গোলটি করতে না পেরে ম্যাচে আমাদেরকে কিছুটা সংগ্রাম করতে হয়েছে। ’

ম্যাচের প্রথমার্ধে দক্ষিন কোরিয়াকে কিছুটা আতংকের মধ্যেই রেখেছিল কিরগিজস্তান। বিশেষ করে বেকজান সাগিনবায়েভের কর্নার ভীতি ছড়িয়ে দিয়েছিল কোরিয়দের শিবিরে। অপরদিকে লী চুং-ইয়ং গোলের দারুণ একটি সুযোগ হাতছাড়া করেছিল। সতীর্থ কো জা-চেওলের দারুণ একটি প্রচেষ্টা পাঞ্চ করে নস্যাৎ করে দেন কিরগিজ গোল রক্ষক কুটমান কাদিরবেকভ। শেষ পর্যন্ত ৪১তম মিনিটে কর্নারের সময় কোরিয় ডিফেন্ডার মিন জেই তার পাহারাদারকে ফাঁকি দিয়ে গোল করতে এতটুকু ভুল করেননি। এতেই এগিয়ে যায় দক্ষিণ কোরিয়া।

এর আগে আবুধাবিতে অনুষ্ঠিত ম্যাচে মার্সেলো লিপ্পির চীনকে প্রথমার্ধেই এগিয়ে দেন উ লেই। ম্যাচের ৪০তম মিনিটে গোল করেন তিনি (১-০)। ম্যাচের ৬৬তম মিনিটে ফের গোল করে দলকে দ্বিগুন ব্যবধানে পৌঁছে দেন লেই (২-০)। ৮০তম মিনিটে চীনের হয়ে তৃতীয় গোলটি আদায় করেন বদলী হিসেবে মাঠে নামা উ দাবাও। এটি ছিল চীনের হয়ে তার ক্যারিয়ারের প্রথম গোল (৩-০)।

দুবাইয়ে অনুষ্ঠিত ম্যাচে যুদ্ধ বিধ্বস্ত ফিলিস্তিনকে ৩-০ গোলে হারিয়ে শিরোপা ধরে রাখার সতর্কবার্তা পৌঁছে দেয় বর্তমান চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়া। কোচ গ্রাহাম আর্নল্ডের দলের হয়ে ম্যাচে গোল করেছেন যথাক্রমে কেমি ম্যাকলারেন, আভের ম্যাবিল ও বদলী খেলোয়াড় এপসতোলস জিয়ানাউ। এর আগে গ্রুপ বি’র ওপেনিং ম্যাচে জর্ডানের কাছে হেরে গিয়েছিল সকারুসরা। এখন আত্মবিশ্বাস পুনরুদ্ধার হওয়া দলটি গ্রুপের শেষ ম্যাচে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে সিরিয়ার।

সকারুস কোচ আর্নল্ড খেলা শেষে বলেন, ‘এখন আমাদের মনোযোগ জুড়ে রয়েছে সিরিয়ার বিপক্ষের ম্যাচটি। সে লক্ষ্যে আমরা অনুশীলনে ফিরতে যাচ্ছি। আমরা ভালভাবেই ঘুরে দাঁড়িয়েছি। সিরিয়াকে হারাতে পারব বলে আশা করছি। যত দিন যাবে আমরা আরো ভাল করতে থাকব।’