Skip to main content

অবশ্যই নারীর যথাযথ শিক্ষার প্রয়োজন আছে শফী হুজুরের কথা অর্থহীন : এলিনা খান

ফাহিম বিজয় : মেয়েদেরকে স্কুল-কলেজে না দিতে এবং দিলেও সর্বোচ্চ ক্লাস ফোর বা ফাইভ পর্যন্ত পড়ানোর জন্য ওয়াদা নিয়েছেন হেফাজতে ইসলামের আমীর আল্লামা শাহ আহমদ শফী এর প্রতিক্রিয়ায় বাংলাদেশ হিউম্যান রাইটস ফাউন্ডেশনের প্রধান নির্বাহী অ্যাডভোকেট এলিনা খান বলেছেন, হাদিসে বলা আছে, সকল নারী এবং পুরুষের জন্য জ্ঞান অর্জন করা ফরজ জ্ঞান-অর্জনের জন্য সুদূরেও যেতে বলা হয়েছে এখানে বলা হয়নি যে, নারীর জন্য শিক্ষা আরা পুরুষের জন্য উচ্চশিক্ষা গ্রহণ করতে হবে কোরআন শরীফের প্রথম আয়াতটিও কিন্তুপড়ো দিয়ে শুরু করা হয়েছে সেখানে তিনি কীভাবে বলেন, নারীরা  ক্লাস ফোর বা ফাইভ পর্যন্ত পড়বে! আমি যদি ভালোভাবে বুঝে ধর্ম পালন করতে চাই, তাহলে অবশ্যই নারীর যথাযথ শিক্ষার প্রয়োজন রয়েছে নারী ঘরে বা বাইরে শিক্ষকের ভূমিকা পালন করে থাকেন নারী হলেন, শিক্ষক

প্রতিবেদকের সঙ্গে আলাপকালে তিনি বলেন, যিনি ঘরে বা বাইরে শিক্ষকের ভূমিকা পালন করে থাকেন তিনিই যদি যথাযথ শিক্ষা না পান তাহলে অন্যকে কী শেখাবেন? তা ধর্মীয় শিক্ষা হোক বা সাধারণ শিক্ষা একজন নারীর বাচ্চাকে ধর্মীয় জ্ঞান বা ধর্মীয় শিক্ষা প্রদান করার জন্য তাকে অবশ্যই ধর্মের যথাযথ জ্ঞানের অধিকারী হতে হবে আমি যদি ইসলাম সম্পর্কে ভালো করে জানতে চাই বা যেকোনো ধর্ম সম্পর্কে ভালো করে জানতে চাই এবং সৃষ্টিকর্তা সম্পর্কে ভালো করে জানতে চাই তাহলে ধর্মের ব্যাপারে যথেষ্ট জ্ঞান থাকতে হবে ক্লাস ফোর/ফাইভের মেয়ের পক্ষে এসব জানা সম্ভব নয়

তিনি আরো বলেন, আমরাই এজন্য দায়ী আমাদের দেশে ভোট বা অন্য কিছু যখন আসে তখন আমরা সবকিছু ভুলে যাই এবং ভুলে গিয়ে তাদেরকেই প্রমোট করতে থাকি যার খেসারত এই কথাগুলোর শোনার মাধ্যমে দিতে হচ্ছে যেখানে ইসলাম নর-নারী উভয়ের শিক্ষার ব্যাপারে জোর দিয়েছে সেখানে এই কথাগুলো নিয়ে আসার অর্থ হলো, নারীদেরকে সব দিক থেকে পিছিয়ে দেয়া এবং নারীদের ওপর অত্যাচারের শামিল